অফিস সহকারীর আলমারিতে মিলল ‘আত্মসাতের’ ২৩ লাখ টাকা

নওগাঁ জেলা সঞ্চয় অফিসের একটি আলমারি থেকে ২২ লাখ ৮৭ হাজার টাকা জব্দ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে অফিসের উচ্চমান সহকারী হাছান আলীকে। আজ বুধবার বিকেলে দুদকের রাজশাহী সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের তদন্তকারী দল এই অভিযান চালায়।

দুদকের রাজশাহী কার্যালয় সূত্র জানিয়েছে, এসব টাকা গ্রাহকদের কাছ থেকে আত্মসাৎ করা অফিস সহকারী সাদ্দাম হোসেনের ২ কোটি ৩৭ লাখ টাকার অংশবিশেষ। অর্থ আত্মসাতে সাদ্দামকে সহযোগিতা করেছেন উচ্চমান সহকারী হাছান আলী।

দুদকের রাজশাহী সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আলমগীর হোসেন নওগাঁ সদর থানার পুলিশের সহযোগিতায় এই অভিযান চালান। আলমগীর হোসেন বলেন, অফিসে হাছান আলীর ব্যবহৃত আলমারিতে এই ২২ লাখ ৮৭ হাজার টাকা পাওয়া গেছে। জব্দ করা এসব টাকা নওগাঁ জেলা প্রশাসকের কোষাগারে জমা দেওয়া হয়েছে। হাছান আলীকে গ্রেপ্তার করে নওগাঁ সদর থানার পুলিশে হস্তান্তর করা হয়েছে।

২০১৮ সালের মার্চ থেকে ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত নওগাঁ সঞ্চয় অফিসের ২৭ গ্রাহকের সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের জমা ভাউচার জালিয়াতি করে ২ কোটি ৩৭ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে ওই অফিসের অফিস সহায়ক সাদ্দাম হোসেনের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে জেলা সঞ্চয় কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন গত ১৫ জুন সাদ্দাম হোসেনের বিরুদ্ধে নওগাঁ সদর থানায় মামলা করেন। ২৫ জুন রাজশাহী মহানগরের জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে সাদ্দামকে গ্রেপ্তার করে দুদক। আজ অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া দুদকের সহকারী পরিচালক আলমগীর হোসেন এই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

নওগাঁ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, হাছান আলীকে আদালত নওগাঁ জেলা কারাগারে পাঠিয়েছেন।

শেয়ার করুন