ঘূর্নিঝড় আমফান মোকাবেলায় দশমিনায় প্রশাসন প্রস্তুত

সঞ্জয় ব্যানার্জী, দশমিনা(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:ঘূর্নিঝড় সুপার সাইক্লোন আমফান আতংঙ্কে কাটছে দিন-রাত তেঁতুলিয়া নদী বেষ্টিত পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলায় বসবাসকারীদের। উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে ২০১১সালের জনশুরারি অনুযায়ী প্রায় ১লক্ষ ২৪হাজার মানুষের বসবাস। দফায় দফায় প্রস্তুতিমূলক সভা করে যাচ্ছেন উপজেলা প্রশাসন। উপজেলায় ঘূর্নিঝড় সুপার সাইক্লোন আমফান ক্ষতিরোধে ১শ” ৩০টি আশ্রায় কেন্দ্রের জন্য প্রস্তুত রয়েছে শুকনো খাবার।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ৭৪টি ইউনিটের ১১শ”৯৫জন সদস্য মাঠে সর্তকতা মূলক আবহাওয়ার পূর্বাভাস মাকিং করে প্রচার করা হচ্ছে। সিপিবি’র প্রশিক্ষক রায়হান বাদল জানান, উপক‚লীয় অঞ্চল হিসেবে সুপার সাইক্লোনে দশমিনা উপজেলা ৭নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় থাকায় প্রত্যন্ত অঞ্চলে ২টি সাংকেতিক পতাকা উত্তোলন করে স্থানীয় জনগনকে সর্তক করা হচ্ছে। এবং আমাদের সিপিবির কর্মীদের মাধ্যমে মানুষকে আশ্রায়ন কেন্দ্রে নেয়া হচ্ছে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসাঃ তানিয়া ফেরদৌস জানান, উপজেলার সদর ইউনিয়নের চরহাদি এবং বাশঁবাড়িয়া ইউনিয়নকে ঝুকিঁপূর্ণ ঘোষনা করা হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ন এলাকার আশ্রায়ন কেন্দ্রগুলোতে সেচ্ছাসেবক ও কর্মী প্রস্তুত রাখা হয়েছে। চরঘূর্নি আশ্রায়ন কেন্দ্রে আশ্রিতাদের জন্য খাবার পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন